মুদ্রণ শিল্পের অগ্রগতির ক্ষেত্রে উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরীর U.N and Sons এর ভূমিকা লেখ।

মুদ্রণ শিল্পের অগ্রগতির ক্ষেত্রে উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরীর U.N and Sons এর ভূমিকা লেখ।


ভূমিকা:
 উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরী ছিলেন একাধারে সাহিত্যিক, চিত্রকর, প্রকাশক ও সুরকার। অপরদিকে ছিলেন প্রকৃতপক্ষে বাংলার মুদ্রণ শিল্পের অগ্র পথিক। মুদ্রণ শিল্প অগ্রগতির ক্ষেত্রে তার U.N Roy and Sons এর ভূমিকা বিশেষ প্রশংসনীয়।

তিনি বিদেশ থেকে আধুনিক উন্নত মানের মুদ্রণযন্ত্র এনে কলিকাতায় শিবনারায়ণ দাশ স্ট্রীটে একটি ছাপাখানা প্রতিষ্ঠা করেন এটি UN Roy and Sons নামে পরিচিত। মুদ্রণ কাজে উন্নতি ঘটানোর জন্য তিনি নানান পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে ছিলেন।

প্রেসের শিল্প: 
তিনি প্রযুক্তিবিদ্যা ও ফটোগ্রাফির সাহায্যে প্রতিচ্ছবি ছাপার কাজ এ প্রেস শিল্পে মৌলিক অবদান রাখেন।

হাফটোন ছবি ও ব্লক তৈরি: 
তিনি কাঠের পরিবর্তে তামা ও দস্তার পাতে অক্ষর বা ছবি তৈরি করে মুদ্রণ এর প্রয়োজনীয় ব্লক তৈরি করেন। এছাড়া তিনি অন্ধকার ঘরে বসে আলোর প্রতিফলন ও প্রতিসরণ লক্ষ্য করে উন্নত মুদ্রণ কৌশল উদ্ভাবন করেন। এই কৌশল ব্যবহার করে মুকুল, বালক ও ভারতীয় মনীষীদের ছবি আঁকেন।

স্ক্রিমও জায়াফ্রেমের ব্যবহার: 
তিনি প্রথম বাঙালি যিনি একটিমাত্র আয়তো কার ৬০ ডিগ্রী স্ক্রিম ও কয়েকটি জায়া ফ্রেমের সাহায্যে থ্রি কালার ও হাফটোন ছবির নেগেটিভ তৈরি করেন। এছাড়াও স্ক্রিম আন্ত জাস্ট মেন সিন্ডিকেটের তৈরি করে ফটোগ্রাফির নেগেটিভ এর ক্ষেত্রে খরচ সাশ্রয়ের এর ব্যবস্থা করেন।

স্টুডিও: 
তিনি ছাপাখানার পাশাপাশি স্টুডিও খুলে আধুনিক ফটোগ্রাফি নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালান এবং সম্বন্ধে উচ্চশিক্ষা লাভের জন্য নিজ পুত্র সুকুমার রায় কে ইংল্যান্ডে পাঠান।

বই প্রকাশ:
 তার এই ছাপাখানা থেকে মুদ্রিত রঙিন বইয়ের মধ্যে ছিল ছেলেদের মহাভারত, গুপী গাইন বাঘা বাইন, টুনটুনির বই, সেকালের কথা ইত্যাদি।

মূল্যায়ন: উপান্তে বলা সংগত হবে যে, উন্নত মুদ্রণ ও আধুনিক ফটোগ্রাফির উদ্ভাবনী কৌশল আবিষ্কারের ক্ষেত্রে উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরীর কৃতিত্ব আজও অম্লান। বলা যায় তিনি ছিলেন আধুনিক মুদ্রণ শিল্পের রূপকার।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url