Youtube Channel Subscribe us

জাতীয়তাবাদ বিকাশে অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভারতমাতা চিত্রের ভূমিকা লেখ।


জাতীয়তাবাদ বিকাশে অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘ভারতমাতা' চিত্রের ভূমিকা লেখ।


ভূমিকা: 

ব্রিটিশ শাসিত ভারতে ভারতীয়দের মধ্যে দেশপ্রেম, স্বজাত্যবোধ সৃষ্টি ও জাতীয়তাবাদ বিকাশে যে সকল দিক রয়েছে তাদের মধ্যে একটি অন্যতম দিক হলো চিত্রশিল্পী। এক্ষেত্রে অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘ভারতমাতা 'চিত্রের ভূমিকা ছিল অনন্য।

চিত্র অঙ্কন:
 রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভাইপো অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর অঙ্কিত ভারতমাতা চিত্র ছিল এক অন্যতম অমর স্মৃতি। জলরঙ-এর এই চিত্র ছিল জগৎ বিখ্যাত।

প্রেক্ষাপট:
 বাংলায় ব্রিটিশবিরোধী বঙ্গভঙ্গের বিরুদ্ধে স্বদেশী আন্দোলনের পেক্ষাপটে রাজনৈতিক ক্ষেত্রে সমান্তরালে সাংস্কৃতিক আন্দোলন গড়ে তুলতে তার এই চিত্রাংকন।

নামকরণ: 

অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর এই চিত্রের নামকরণ বঙ্গমাতা রাখলেও ভগিনী নিবেদিতা এই চিত্রের উৎকর্ষতার দিক চিহ্নিত করে ভারতমাতা নামকরণ করেন।

স্বদেশীয়ানা:
 তিনি তার এই চিত্রের মধ্য দিয়ে একদিকে ফুটিয়ে তুলেছেন স্বদেশী ভাবাদর্শ সমৃদ্ধ স্বদেশী আনাকে, অপরদিকে ফুটিয়ে তুলেছেন সন্তানদের প্রতি মায়ের অভয় শক্তি দান। তার এই চর্তুভূজ মাতৃরূপী ভারতমাতা চিত্রের বাম হাতে রয়েছে বেদ বা পুস্তক___শিক্ষাদান, ওই দিকের নিচের হাতে ধানের গোছা___অন্নদান। ডানদিকের উপরের হাতে শ্বেতবস্ত্র____শক্তির প্রতীক, আর নিজের হাতে জপের মালা___শিক্ষাদান - এগুলির যথার্থই ছিল সন্তানের প্রতি মায়ের দান।

শান্তির প্রতীক:
 তার এই ভারতমাতা চিত্রের হাতে কোন অস্ত্র না থাকায় স্বদেশী ভাবনায় সশস্ত্র আন্দোলনকে দূরে সরিয়ে শান্তির প্রতীক হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

জাতীয়তাবাদী চেতনা: 
এই ছবি নিয়ে দেশে যথেষ্ট হইচই পড়ে যায়। এই ছবিটি নব জাতীয়তাবাদের প্রতীকে পরিণত হয় এবং দেশবাসী মুক্তির স্বাদ পায়। বিংশ শতকে ব্রিটিশবিরোধী বিভিন্ন আন্দোলনের অগ্রভাগে এই ভারতমাতা চিত্র দেখে বৈপ্লবিক চিন্তা-চেতনা ও অনুপ্রেরণার সঞ্চার ঘটানো হয়।

সমালোচনা:
 অনেকের অভিযোগ ভারত মাতা চিত্রের হিন্দু প্রভাব কে প্রাধান্য দেওয়ায় মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে সহানুভূতির সঞ্চার ঘটেনি কিন্তু বাস্তবে এই চিত্র যে, হিন্দু স্বদেশীকতার সমর্থক ছিল তার প্রমাণ পাওয়া যায়নি। ভগিনী নিবেদিতা এই চিত্রের অকুট প্রশংসা করেছেন, জগদীশচন্দ্র বসু নিজেও কক্ষে এই ছবি টাঙ্গিয়ে রাখেন, জাপানি পন্ডিত ওকাকুরা ও প্রভাবিত হয়েছিলেন।

মূল্যায়ন: সুতরাং ভারতমাতা চিত্র ব্রাহ্মসমাজের কাছে বিরক্তিকর হলেও বৈপ্লবিক চিন্তা চেতনা ও জাতীয়তাবাদের বিকাশ ঘটাতে আজও সকল ভারতীয়দের কাছে চরমভাবে অগ্রাসী।

আরো জানুন :


Next Post Previous Post
×