Youtube Channel Subscribe us

বাংলাদেশের পাট চাষের উন্নতির কারণ আলোচনা করো


বাংলাদেশের পাট চাষের উন্নতির কারণ আলোচনা করো

বাংলাদেশের মোট কৃষি জমির 70 শতাংশে বর্ষাকালে পাট চাষ করা হয়। প্রধানত নারায়ণগঞ্জ, উত্তর রাজশাহী, ফরিদপুর প্রভৃতি অঞ্চলে প্রচুর পাট উৎপাদিত হয় ও বর্তমানে রপ্তানিতে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। এর উন্নতির কারণ গুলি হল -

প্রাকৃতিক কারণ

জলবায়ু
উষ্ণ আদ্র জলবায়ু হওয়ায় এখানকার গড় উষ্ণতা ২৫ থেকে ৩০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড হয় যা পাট চাষের জন্য উপযুক্ত। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু দ্বারা 150 থেকে 250 সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত পাট চাষের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।

মৃত্তিকা
বাংলাদেশে নবীন ও পুরানো অম্ল ধর্মী পলিমাটি ও নাইট্রোজেন পটাস ও জৈব বস্তু যুক্ত উর্বর পলিমাটিতে পাট চাষ ভালো হয়।

ভূ প্রকৃতি

গঙ্গা ব্রহ্মপুত্র বদ্বীপ সমভূমি অঞ্চলের জমি সমতল ও উত্তম জল নিকাশি ব্যবস্থাযুক্ত হওয়ায় এখানে পাটের ফলন বেশি হয়।

আবদ্ধ জলাশয়
বাংলাদেশের বিস্তীর্ণ প্লাবনভূমিতে অসংখ্য ঝিল, পুকুর, ডোবা, খাল থাকায় পাট থেকে আশ সংগ্রহ করার সুবিধা রয়েছে।

অর্থনৈতিক কারণ

শ্রমিক
বিপুল জনসংখ্যা যুক্ত দেশ বাংলাদেশের পাট চাষে পর্যাপ্ত সংখ্যক সুলভ শ্রমিক পাওয়া যায় ফলে এখানে পাট চাষের জমির পরিমাণ বেশি।

জলসেচ
বর্ষাকালে পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত ছাড়াও অসংখ্য নদী, খাল ও বিলের মাধ্যমে জলসেচ করা হয়।

অন্যান্য
এখানে সরকারি কর্তৃক বিপুল অর্থ বিনিয়োগ, সহজ শর্তে কৃষি ঋণ, অভ্যন্তরীণ ও বৈদেশিক বাজার, উচ্চ কৃষি পদ্ধতি ও চট্টগ্রাম বন্দরের মত বিদেশে পরিবহন ব্যবস্থা পাট চাষের উন্নতির অন্যতম প্রধান কারণ।


Next Post Previous Post
×