Youtube Channel Subscribe us

স্বাধীনতার পর দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তিতে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের অবদান লেখো


Q. স্বাধীনতা লাভের পর ভারতীয় রাজ্যগুলির ভারতভূক্তিতে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের ভূমিকা

ভূমিকা :

স্বাধীনতা লাভের পর ভারতবাসী তথা জাতীয় নেতাদের কাছে বড় সমস্যা দেশীয় রাজ্যগুলির সংযুক্ত ও পুনর্গঠন। অর্থাৎ দেশীয় রাজ্যগুলি ভারতীয় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে না পাকিস্তান রাষ্ট্রের সঙ্গে যুক্ত হবে ত নিয়ে দ্বন্ধে জল্পনার মধ্যে দ্বিধাগ্রস্থ। এক্ষেত্রে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের ভূমিকা প্রশংসনীয়।

দেশীয় রাজ্য ও তাদের সমস্যা :

স্বাধীনতা লাভের পর দেশীয় রাজ্যের সংখ্যা 600 এর অধিক। এই স্বাধীন দেশীয় রাজ্যগুলির প্রাথমিক সমস্যা ছিল -
১. রাজনৈতিক ও সামরিক দিক দিয়ে দুর্বলতার সমস্যা।
২. অভ্যন্তরীণ ও বৈদেশিক রাষ্ট্রের আক্রমণে আসা নিরাপত্তার অভাব।

ভারতভুক্তি করণের প্রয়োজনীয়তা :

অখন্ড জাতীয়তাবাদ : 
স্বাধীনতা লাভের পর বিচ্ছিন্ন ভারতকে অখন্ড একই জাতীয়তাবাদের বন্ধনে আবদ্ধ করা।

ঐতিহ্য রক্ষা :
ব্রিটিশ ভারত ও দেশীয় রাজ্যগুলি দীর্ঘদিন ধরে একই ইতিহাস ও ঐতিহ্য বহন করে চলেছে। তাই দেশীয় রাজ্যগুলি পৃথকভাবে স্বাধীন হলে তা ঐতিহ্য বিরোধী।

প্রজা আন্দোলন :
গনতন্ত্র ও স্বাধীনতার দাবিতে দেশীয় রাজ্যগুলিতে প্রজাতান্ত্রিক আন্দোলনের সূত্রপাত হওয়ার সূত্রে ভারতভুক্ত হওয়ার পথ প্রশস্ত হয়।

বৈদেশিক আক্রমণ রোধ :
আর্থিক, সামরিক ও রাজনৈতিক দিক থেকে দুর্বল স্বাধীন যুক্তরাষ্ট্র গুলিকে বিদেশি শক্তি গ্রাস করলে, বহির্জাত দরজা দিয়ে বেরিয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করা।

সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের ভূমিকা :

দেশীয় রাজ্যগুলিকে ভারতভূক্ত করার জন্য স্বাধীন ভারতের প্রথম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল বিভিন্ন নীতি গ্রহণ করেন --

সমঝোতা বা মিত্রতার নীতি :
এই নীতি দ্বারা ভূপাল, ত্রিপুরা, মনিপুর, কোচবিহার প্রভৃত দেশীয় রাজ্যগুলিকে ভারতভুক্ত করা হয়।

কূটনীতি :
এই নীতির মাধ্যমে বেশ কিছু দেশীয় রাজ্যকে ভারতভূক্ত করেন।

গণভোটের মাধ্যমে :
হিন্দুপ্রধান জুনাগর রাজ্যকে এবং মুসলিম প্রধান কাস্মীর রাজ্যকে ভারতভুক্ত করা হয়।

সামরিক বল প্রয়োগে :
সামরিক শক্তি প্রয়োগ করেও কিছু রাজ্যকে ভারতভূক্তি করানো হয়।

জনগণের ইচ্ছা :
ভারতে ফরাসিদের উপনিবেশ ছিল বাংলার চন্দননগর, মাদ্রাজের পন্ডিচেরি। স্বাধীনতা লাভের পর এই সকল অঞ্চলের জনগন ভারতে যুক্ত হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে। পরে গোয়া, দমন ও দিউ, দাদরা ও হাভেলি প্রভৃত পর্তুগিজ উপনিবেশে ভারতীয় জনগন ভারতের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে এবং ভারতভুক্তী করেন।

মন্তব্য :
নিম্নে বলা সঙ্গত হবে যে দেশীয় রাজ্যগুলির ভরতভুক্তি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ছিল। দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভূক্তী না হলে নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার টানাপোড়নে রাষ্ট্রগুলির জীবন খণ্ডিত হয়ে পরাধীনতার আবদ্ধে পুনরায় হয়তো স্বীকার হত। এক্ষেত্রে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল ও তার সচিব v p মেনন এর অবদান চির স্বরনীয়।


Next Post Previous Post
×