Youtube Channel Subscribe us

হিউমিফিকেশন কাকে বলে? বৈশিষ্ট্য ও শ্রেণীবিভাগ করো।


হিউমিফিকেশন কাকে বলে? বৈশিষ্ট্য ও শ্রেণীবিভাগ করো।

হিউমিফিকেশন :

যে প্রক্রিয়ায় মাটির উপরি স্তরে মৃত জিবদেহাবশেষ আণুবীক্ষণিক জীবাণু দ্বারা বিয়োজিত ও পরিবর্তিত হয়ে বাদামি বর্ণের এক পদার্থের সৃষ্টি করে, তাকে জৈবকরন বা হিউমিফিকেশন বলে।

হিউমিফিকেশনের বৈশিষ্ট্য

১. এটি বেশি মাত্রায় থাকলে মাটি উর্বর হয়।
২. এই প্রক্রিয়ার দ্বারা রেগোলিথ মাটিতে পরিণত হয়।
৩. এটি মৃত্তিকার '0' স্তরে সৃষ্টি হয়।

শ্রেণীবিভাগ

জলবায়ুর পার্থক্যের জন্য চার ধরনের হিউমিফিকেশন ঘটে -

১. উষ্ণ ও আদ্র ক্রান্তীয় হিউমিফিকেশন

এখানে আদ্রতা বেশি থাকায় মাটিতে জৈব পদার্থের পরিমাণ বেশি থাকে ও হিউমাস সৃষ্টি হয়। কিন্তু উষ্ণতা অধিক হলে হিউমিফিকেশনের পরিবর্তে খনিজকরণ বেশি হয়।

২. মরুপ্রায় অঞ্চলের হিউমিফিকেশন

উষ্ণ মরুপ্রায় অঞ্চলে আদ্রতার অভাবে এই প্রক্রিয়া হয়না কিন্তু নাতিশীতোষ্ণ মরুপ্রায় প্রেইরি, পম্পাস ইত্যাদি তৃণভূমিতে কাচা জৈব পদার্থের পরিমাণ বেশি থাকায় হিউমিফিকেশন বেশি হয়।

৩. অবায়ুজীবি হিউমিফিকেশন

ক্রান্তীয়, নাতিশীতোষ্ণ ও নিরক্ষীয় অঞ্চলের হ্রদ, পুকুর ও জলাভূমির তলদেশের উদ্ভিদ অবায়ুজিবী জীবাণু দ্বারা পচে সেখানেই হিউমাস রূপে পিট মাটির সৃষ্টি হয়।

৪. আম্লিক হিউমিফিকেশন

মাটিতে চুন জাতীয় পদার্থের অভাব থাকলে এই হিউমিফিকেশন ঘটে। সরলবর্গীয় ও তুন্দ্রা উদ্ভিদে এই হিউমিফিকেশন বেশি হয়।

আরো অন্যান্য প্রশ্নগুলি


Next Post Previous Post
×