নীলধ্বজের প্রতি জনা কবিতায় জনার অভিযোগ গুলি লেখ ।

নীলধ্বজের প্রতি জনা কবিতায় জনার অভিযোগ গুলি লেখ ।

মাইকেল মধুসূদনের কবিতায় দেখা যায় অশ্বমেধ যজ্ঞের ঘোড়ার পথ রুদ্ধ করার জন্য মহেশ্বরীপুরির যুবরাজ প্রবীর অর্জুনের বাণে বিদ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। কিন্তু কবির পিতা নীলধ্বজের আচরণ বিসংগত, পুত্রহারা রিপুর প্রতি প্রতিবিধিৎসা পরায়ন না হয়ে তিনি ভীরুতার সাধনা করেছেন অর্জুনকে নর নারায়ান জ্ঞানে পূজা করেছেন। স্বামীর এরূপ আচরণের আহত সর্পিনীর মত ক্ষুব্দ হয়ে অজস্র অগ্নিবর্ষণে স্বামীর মধ্যে ক্ষত্রিয় ধর্ম জাগিয়ে তোলার চেষ্টা করেছেন, ফাল্গুনীর লোহে নেভাতে চেয়েছেন পুত্রশোকের বিষম জ্বালা। কিন্তু নীলধ্বজ নির্বিকার। তখনই জনা তার পূজিত পার্থর এবং অন্যান্যদের কলঙ্ক কথা রচনা করে এবং তার কাপুরুষতা ও ভীরুতার উল্লেখ করে তাঁর ভুল ধরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন তাকে তার ভ্রষ্ট মতিত্ত থেকে ফিরিয়ে এনে পুত্র হত্যার প্রতি প্রতিবিধিৎসা পরায়ন করতে চেয়েছেন।

অর্জুনের কলঙ্কগাঁথা :

নীলধ্বজ অর্জুনকে নরনারায়ন জ্ঞানে পূজা করেছেন কিন্তু জনা মনে করেন অর্জুন কখনো তা হতে পারেন না, কেননা তার জননী ভোজ বালা কুন্তি তো স্বৈরিণী, পঞ্চ পুরুষের অংক সায়িনি। ভগবান ঋষিকেশ কখনো কোনো কুলটা নারীর গর্ভে জন্ম নিতে পারেন না। আবার ব্যাসদেব যিনি পান্ডু কীর্তন গান গেয়েছেন তার জন্মও কলঙ্কিত। তাছাড়া অর্জুন যদি নর-নারায়ণ রূপে অবতীর্ণ হন তাহলে লক্ষীদেবী রূপে আবির্ভূতা দ্রৌপদী। কিন্তু তিনিও তো শ্বাশুড়ির যোগ্য বধু পঞ্চস্বামীর অঙ্কশায়িনী 'গৌরব সরসে নলিনী'।

অর্জুনের ভীরুতা :

জনশ্রুতি আছে পার্থ রথিকুলপতি। কিন্তু জনার মতে তা মিথ্যা কথা। দ্রৌপদীর সয়মবর সভায় তিনি ব্রাম্ভনের ছদ্মবেশ ধারণ করেছিলেন বলেই ক্ষত্রিয় রাজাগণ করুণা করে তার সাথে সাধ্যমত যুদ্ধ করেনি। তার খান্ডব বন দহনও কৃষ্ণের সহায়তাতেই সফল হয়েছিল। পিতামহ ভীষ্ম কে নিধন করতে শিখন্ডীর সহায়তা পেয়েছিল অর্জুন এবং অস্ত্রগুরু দ্রোণাচার্য বধ এর ক্ষেত্রেও কপটতাই ছিল তার অস্ত্র। মহাবীর কর্ণ কে মারার ক্ষেত্রে তিনি ক্ষত্রিয় রীতি লঙ্ঘন করেন। তারপর রথের চাকা যখন মাটিতে প্রোথিত হয়ে যায় তখনি অসহায় কর্ণকে তিনি অন্যায় ভাবে নিহত করেন। তাহলে অর্জুনের বীরত্ব কোথায়।

এভাবেই জনা অর্জুনের নিন্দা করে প্রবীরের হত্যা যে যথার্থ বিরচিত নয় বা ক্ষত্রিয় জনোচিত নয়, তা নিতান্তই গর্হিত কাজ তা নীলধ্বজকে বোঝাতে চেয়েছেন।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url
যেকোনো প্রশ্নের উত্তর পেতে ও অনলাইন কুইজ এ অংশগ্রহণ করতে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে যোগ দিন। https://telegram.me/Studyquoteofficial