খ্রিস্টপূর্ব ষষ্ঠ শতকে ভারতের নতুন ধরনের ধর্মীয় আন্দোলনের পটভূমি আলোচনা করো। বা প্রতিবাদী আন্দোলনের প্রেক্ষাপট আলোচনা করো?

খ্রিস্টপূর্ব ষষ্ঠ শতকে ভারতের নতুন ধরনের ধর্মীয় আন্দোলনের পটভূমি আলোচনা করো। বা প্রতিবাদী আন্দোলনের প্রেক্ষাপট আলোচনা করো?


সূচনা 

খ্রিস্টপূর্ব ষষ্ঠ শতকে এক আলোড়নের যুগ বলে চিহ্নিত করেছে। এই যুগে বৈদিক ব্রাহ্মণ ধর্মের বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রতিবাদ শুরু হয়। বেশ কিছু নতুন ধর্ম মতের উদ্ভব ঘটে। এই যুগে ভারতে 63 টি ধর্মের উত্থান ঘটে।

এই ষষ্ঠ শতকের আন্দোলনে অনেকগুলো কারণের জন্য ঘটেছিল

  • ধর্মীয় কারণ গুলি হল

আধ্যাত্বিক অনুসন্ধিতসা

বৈদিক যুগের শেষ দিকে মানুষের মনে আধ্যাত্বিক অনুসন্ধিৎসা বৃদ্ধি পায় । শ্রমন ও পরিব্রাজক নামে দুটি সন্ন্যাসী ছিল নতুন চিন্তাধারার অগ্রদূত। তাদের প্রভাবে মানুষ কুসংস্কার বিশ্বাস থেকে মুক্ত পায়।

যাগযজ্ঞের জটিলতা বৃদ্ধি

বৈদিক যুগের শেষ দিকে ব্রাহ্মণ ধর্ম যোগ্য যুক্ত হয়ে পড়ায় মানুষের কাছে ধর্ম প্রচার পদ্ধতি দুর্বোধ্য হয়ে পড়ে। ধর্ম চারণ পদ্ধতির ব্যয় বহন করা সাধারণ মানুষের পক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়ে।

  • অর্থনৈতিক কারণ

কৃষকদের অবস্থার পরিবর্তন

এই সময় আত্মনির্ভরশীল কৃষক শ্রেণীর উদ্ভব হয় ।লৌহ নির্মিত কৃষি সরঞ্জাম এর ব্যবহার ও সম্পদের ব্যবহার কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি পায়। কিন্তু বৈদিক যুগে প্রচুর পরিমাণে বলি দেওয়ার ফলে কৃষি ব্যবস্থার পরিবর্তন ঘটে।

ব্যবসায়ী শ্রেণীর উচ্চাকাঙ্ক্ষা

এই সময়ই নদী তীরবর্তী অঞ্চলে বহু নতুন নগর প্রতিষ্ঠিত হয়, ফলে এই সময় ব্যবসা বাণিজ্যে বৃদ্ধি পায় । বাণিজ্য বৃদ্ধি পাওয়ায় বৈশ্য শ্রেণীর আর্থিক সমৃদ্ধির ঘটে।

  • রাজনৈতিক কারণ

নতুন সমাজ স্থাপন

ব্রাহ্মণদের রক্ষণের পরিবর্তে গণরাজ্যগুলিতে উপজাতি ও রীতি অনুযায়ী বর্ণাশ্রম বিহীন নতুন স্থাপিত হয় । সেখানে ব্রাহ্মণদের সম্মান প্রদর্শন করা বাধ্যতামূলক ছিল না।

মত প্রকাশের স্বাধীনতা

গণ রাজ্যগুলিতে ব্যক্তি স্বাতন্ত্র্য ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুযোগ ছিল। এই রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে মহাবীর ও গৌতম বুদ্ধের দর্শন গড়ে তোলার সুযোগ পেয়েছিল এবং তারাই ব্রাহ্মণ দের বিরুদ্ধে সমাজ সংস্কারের ডাক দিয়েছিলেন।

  • সামাজিক কারণ

ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ

বৈদিক সমাজে ব্রাহ্মণদের স্থান ছিল সবার উপরে , সমাজেও রাষ্ট্রে তারা সুযোগ-সুবিধা অধিকার করেছিল। সমাজের অন্যান্য শ্রেণীর মধ্যে ব্রাহ্মণদের একচেটিয়া বিরুদ্ধে ক্ষোভ ধুমইত হচ্ছিল।

নারীদের ক্ষোভ

ব্রাহ্মণ সমাজে নারী জাতিকে সম্মানের চোখে দেখা হতো না। নারীদের বেদ পাঠ ও পারিবারিক সম্পত্তির অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হতো। তাই নারীরা ব্রাহ্মণদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ দেখিয়েছিল
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url