জাদুঘর কাকে বলে? জাদুঘরের উদ্দেশ্য ও কার্যাবলী ও গুরুত্ব আলোচনা করো| HS History Suggestions

জাদুঘর কাকে বলে? জাদুঘরের উদ্দেশ্য ও কার্যাবলী ও গুরুত্ব আলোচনা করো


জাদুঘর বলতে কি বুঝায় তা নিয়ে বিভিন্ন অভিমত পাওয়া যায় - 

আন্তর্জাতিক জাদুঘর পর্ষদের অভিমত
আন্তর্জাতিক জাদুঘর পর্ষদ জাদুঘরের সঙ্গা প্রসঙ্গে বলেছে, জাদুঘর হল একটি অলাভজনক জনসাধারণের কাছে উন্মুক্ত এবং স্থায়ী সমাজসেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। আনন্দলাভের উদ্দেশ্যে মানপত্র যোগ্য ও অযোগ্য জিনিস পত্র সংগ্রহ সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করে সেগুলি নিয়ে গবেষণা করে।

বাংলা একাডেমির অভিমত
পশ্চিমবঙ্গ বাংলা একাডেমির বিদ্যার্থী বাংলা অভিধান অনুসারে - যে ঘরে নানা অত্যাশ্চর্য জিনিস বা প্রাচীন জিনিস সংরক্ষিত থাকে তাহল জাদুঘর।

এক কথায় বলা যায় বিভিন্ন পুরাতাত্ত্বিক নিদর্শন সংগ্রহ করে সেগুলি প্রতিষ্ঠান বা ভবনে সংরক্ষণ করে রাখা হয় সেই সব প্রতিষ্ঠান বা ভবনকে জাদুঘর বলে।

জাদুঘরের উদ্দেশ্য কার্যাবলী ও গুরুত্ব

পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থিত বিভিন্ন জাদুঘরের উদ্দেশ্য ও বিভিন্ন ধরনের হতে পারে জাদুঘরের প্রধান উদ্দেশ্য ও কার্যাবলী হলো - 

সংগ্রহ

জাদুঘরের প্রাথমিক উদ্দেশ্য ও কাজ হল দেশ-বিদেশে বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বিভিন্ন ঐতিহাসিক নিদর্শন খুঁজে বের করা এবং সেগুলি সংরক্ষণ করা।

সংরক্ষন

জাদুঘরগুলি সুপ্রাচীন অতীত দিনের বিভিন্ন ধরনের প্রত্ননিদর্শন গুলো সংরক্ষন করে থাকে। প্রাচীন মুদ্রা লিপি শিল্পকর্ম প্রভৃতি জাদুঘরে সংরক্ষিত রাখা হয়।

অতীত সমাজ-সভ্যতার ধারণা দেন

জাদুঘরে যে সমস্ত জিনিস সাজিয়ে রাখা হয় সেগুলি থেকে আমরা অতীতে সমাজ সভ্যতা সম্পর্কে একটা ধারণা পেয়ে থাকি। বিবর্তনের মধ্য দিয়ে মানব সভ্যতা সমাজ ও সভ্যতার অগ্রগতি ঘটেছে তার নিদর্শন জাদুঘরে সংরক্ষিত থাকে।

জনসচেতনা

ঐতিহাসিক নিদর্শন গুলির মাধ্যমে জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করাই হলো জাদুঘরের অন্যতম উদ্দেশ্য ও কাজ।

জ্ঞানের প্রসার

জাদুঘরে সংরক্ষিত বিভিন্ন প্রশ্ন নিদর্শনগুলির পাশে শ্রেণীর দর্শন সম্পর্কিত নানা ধরনের তথ্য লিপিবদ্ধ থাকে। মানুষ সেই তথ্যগুলি পাঠ করার সুযোগ পায় ফলে প্রত্নবস্তু সম্পর্কে ধারণা স্পষ্ট হয় এবং জ্ঞানের প্রসার লাভ ঘটে।

স্মরণীয় ব্যক্তিত্বদের সংগ্রহশালা নির্মাণ

বিশ্বের বেশ কয়েকটি জাদুঘর কে সম্পূর্ণরূপে বা আংশিকভাবে বিশ্বের জনপ্রিয় স্মরণীয় ব্যক্তির মূর্তির সংগ্রহশালা হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে মাদাম তুসো জাদুঘর এর কথা উল্লেখ করা হয়।

গবেষণার কাজ

অনেক সময় জাদুঘরে সংরক্ষিত বিষয়গুলি পন্ডিত ও গবেষকদের ও তাদের লেখার কাজ ও গবেষণার কাজে সাহায্য করে।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url